Select Page

মানুষ হিসেবে আমরা প্রত্যেকেই চাই, সুখময়, শান্তিপূর্ণ ভাবে জীবন কাটাতে । যে জীবনে থাকবে না কোন হতাশা, থাকবে না কোনো দুশ্চিন্তা । কিন্তু ইচ্ছা করলেই বা হাত বাড়ালেই সুখ মেলেনা কিংবা শান্তি আসে না ।

প্রচুর টাকা, ক্ষমতার প্রভাব কিংবা দুনিয়ার কোন কিছু দিয়ে শান্তি অর্জন বা জোগাড় করা সম্ভব না । শান্তি আল্লাহ প্রদত্ত একটি জিনিস । তবে পবিত্র কোরআন-হাদিসে মানুষের কষ্টদায়ক হতাশা এবং অহেতুক দুশ্চিন্তা থেকে দূরে থাকার কিছু কার্যকরী উপায় বল আছে । সেগুলো নিম্নরূপ —

পরকালের স্মরণ | হতাশা থেকে মুক্তির উপায়

জীবনের যে কোনো কষ্টের মুহূর্তে পরকালের কথা স্মরণ করা । মনে করা এ কষ্ট খুবই কম । আমি পরকালে এজন্য প্রতিদান প্রাপ্ত হব । হযরত আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত এক হাদীসে বলা হয়েছে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেন,

“যদি কোনো মুমিন কোন রোগ বা ব্যথা জাতীয় বিপদে আপতিত হয় তখন সেই বিপদের বিনিময়ে তার গুনাহ মাফ করে দেওয়া হয় । এমনকি একটি কাটা বিঁধলেও তার বিনিময়ে পাপ মোচন হয় ।” – সহিহ বুখারী: ৫৬৪০

হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর থেকে বর্ণিত এক হাদীসে নবী করিম (সাঃ) এরশাদ করেছেন,

“যখন কোন মুসলমান রোগাক্রান্ত হয় ঠিকঠাক আমল করতে পারে না তখন মহান আল্লাহ তাআলা ফেরেশতাদের বলেন, যতদিন আমার বান্দা অসুস্থ থাকবে ততদিন দিবারাত্রি সে (সুস্থ অবস্থায়) যে সব আমল করত (এখন করতে পারছে না) সেসব আমলের সওয়াব তার আমলনামায় লিখতে থাকবে।” – মুসনাদে আহমদ: ৬৮২৫

ধৈর্য ধারণ করা | হতাশা থেকে মুক্তির উপায়

যেকোনো প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ধৈর্য ধারণ করা । পবিত্র কুরআনে কারীমে মহান আল্লাহ তাআলা বলেছেন,

“হে ঈমানদাররা! তোমরা ধৈর্য্য ও নামাজের দ্বারা সাহায্য প্রার্থনা করো । নিশ্চয় আল্লাহ তাআলা ধৈর্যশীলদের সঙ্গে আছেন।”- সূরা আল বাকারা:১৫৩

এ আয়াতের ব্যাখ্যায় তাফসিরকারিরা বলেছেন, এ কথা একেবারেই স্পষ্ট । মহান আল্লাহ যদি কারও সঙ্গে থাকেন তার তো আর দুশ্চিন্তার কারণ নেই, থাকতে পারে না । ইসলামিক স্কলাররা বলেছেন, খারাপ পরিস্থিতিতে এই ভেবে শান্তনা গ্রহণ করা, চলমান পরিস্থিতি অস্থায়ী, সাময়িক । এ প্রসঙ্গে পবিত্র কুরআনে কারীমে ইরশাদ হয়েছে,

“নিশ্চয়ই কষ্টের সঙ্গে স্বস্তি রয়েছে । নিশ্চয়ই প্রতিকূল পরিস্থিতির পরেই অনুকূল পরিস্থিতি রয়েছে।” – সূরা আল ইনশিরাহ: ৫-৬

আরো ইরশাদ হয়েছে,

“আর আমি যুগকে মানুষের মধ্যে পালাক্রমে আবর্তিত করি । অর্থাৎ কেউ সবসময় একই অবস্থায় থাকে না।” – সূরা আল ইমরান: ১৪০

মহান আল্লাহর স্মরণ | হতাশা থেকে মুক্তির উপায়

ইসলামের শিক্ষা হলো – সুখে দুখে সর্বাবস্থায় মহান আল্লাহর স্মরণে মশগুল থাকা । পবিত্র আল কোরআন- হাদিসের বর্ণনা মতে, মহান আল্লাহ পাক এর স্মরণ ও আরাধনা দুশ্চিন্তা দূর করতে খুবই ফলপ্রসূ । পবিত্র কুরআনে ইরশাদ হয়েছে,

“জেনে রাখো, আল্লাহর স্মরণ দ্বারাইমুমিনের অন্তরে প্রশান্তি অনুভব করে।”- সূরা রাদ: ২৮